Thursday 22 February

রহস্যময় যেসব খুনের হয়নি কোন সমাধান !

হত্যা মানেই ভয়াবহ বিষয়,আর  সেটা যদি হয় রহস্যজনক তাহলে তা হয় আরও অনেক বেশি লোমহর্ষক। পৃথিবীতে ইতিহাসে এমন অনেক হত্যাকাণ্ড রয়েছে যার রহস্যভেদ করা সম্ভব হয়নি। আজ আপনাদের কাছে সেরকমই কিছু রহস্যজনক হত্যাকাণ্ড তুলে ধরছি -
 
জ্যাক দ্যা রিপার
সময়টা  ১৮৮৮ সাল লন্ডন শহরের ইস্ট এন্ড অফ লন্ডন অঞ্চলে অল্প সময়ের মধ্যে বেশ কিছু হত্যাকাণ্ড ঘটে যায়। পুলিশ তদন্ত শুরু করে দেয় কিন্তু পুলিশ তদন্ত করে খুনিকে সনাক্ত করার মত কিছু পায় না এমন কি কাউকে সন্দেহ করার মত কোন আলামত পায় না। তদন্ত থেকে জানা যায় হত্যার স্বীকার সবাই স্থানীয় পতিতা। হত্যার ধরনের কারণে অনেকে ধারনা করা হয়েছিল খুনি একজন ডাক্তার। সঠিক কোন তথ্য পাওয়া না যাওয়ায় তৈরি হতে থাকে নানা রকম মিথ। হত্যাকারীকে নিয়ে পত্র-পত্রিকায় নান রকম গল্প তৈরি হতে থাকে। গণমাধ্যমে চিঠি লিখে অনেক নিজেকে হত্যাকারী হিসাবে দাবী করে।এই কেস আজ পর্যন্ত অমীমাংসিত।
 
ব্ল্যাক ডালিয়ার হত্যাকাণ্ড
১৯৪৭ সালের ১৫ জানুয়ারি সকালে লস এঞ্জেলস এর লেইমার্ট এলাকায় একটি নগ্ন নারী মৃতদেহ ফুটপাতের পাশে পাওয়া যায়। এই লাশটি ছিল এলিজাবেথের  শর্টের,ডালিয়া খ্যাতি অর্জন ক্যালিফোর্নিয়ায় এসেছিল। সেই সময় এই কেসটি বেশ চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে এবং পত্রিকার শিরোনামে স্থান করে নেয়। মেয়েটির চুল ছিল কাল এবং মেয়েটির পরনে থাকা কাপড় ছিল কাল এই কারণে গণমাধ্যমে কেসটি ব্ল্যাক ডালিয়া নামে পরিচিতি পায়। এফবিআিইয়ের তথ্যমতে খুনটি পেশাদার কোন খুনির,তবে খুনিকে এটা সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। এই ঘটনার ওপর ভিত্তিকরে ১৯৮৭ সালে একটি উপন্যাস ও ২০০৬ সালে একটি সিনেমা তৈরি করা হয়।
 
দ্যা জ্যোডিয়াক কিলার
এই খুনটি ছিল অনেক বেশি চাঞ্চল্যকর,এই খুনি ছিল অত্যন্ত ধূর্ত প্রকৃতির। হত্যাকারী  মিডিয়ার দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য  খুনের সময় বিভিন্ন ধরনের নোট ও চিহ্ন রেখে যেত। ১৯৬৮ থেকে ১৯৬৯ এই সময়ে  এই হত্যাকারী পাঁচ জনকে খুন করে। দুইজন কিশোরকে পার্কিংলটে গুলি করে হত্যার মাধ্যমে তার বীভৎসতার শুরু হয়। এই হত্যাকারী চিঠির মাধ্যমে পুলিশকে জানায় যে আরও অনেক-জন কে খুন করবে। তার প্রায় ৭ মাস পর আবারো দুইজনকে পার্কিং করা কারে গুলি করে হত্যা করা হয়। অজ্ঞাত একজন এইসব খুনের দায় স্বীকার করে পত্রিকায়  একটি চিঠি লিখে। চিঠির মূলভাব ছিল ‌‌‌”আমি মানুষকে খুন করতে পছন্দ করি ,মানুষকে খুন করা অনেক মজার। জঙ্গলে যেয়ে পশু হত্যার চেয়ে মানুষ হত্যা করা ভাল কারণ মানুষ সবচেয়ে হিংস্র প্রাণী।‌‌‌ এই কেস এখন পর্যন্ত অমীমাংসিতই রয়ে গেছে।
সপ্নঘুড়ির সাথে থাকার জন্য আপনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ । আমাদের পোস্ট গুলো যদি ভালো লেগে থাকে বা ইনফরমেটিভ হয় তাহলে প্লিজ শেয়ার করুন আপনার বন্ধু দের সাথে ।
"স্বপ্ন দেখুন, স্বপ্ন নিয়েই বাচুন, অন্যের স্বপ্ন কে উৎসাহ দিন"